জাতীয়

করোনাভাইরাসে জর্জরিত ২০২০ সালে বড়সড় আর্থিক আয় মেসিদের

করোনাভাইরাসে জর্জরিত ২০২০ সালে বড়সড় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে স্পেনের বার্সেলোনাসহ ইউরোপের বড় বড় সব ফুটবল ক্লাবগুলোকে। যা বিশাল অংকের দেনার নিচে ঠেলে দিয়েছে স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাব বার্সেলোনাকে। তবে এরই মাঝে একটি স্বস্তির খবর পেয়েছে ক্লাবটি।

পেশাদার সার্ভিসেস ফার্ম ডেলোয়েট স্পোর্ট বিজনেস গ্রুপের হিসাব অনুযায়ী, ২০১৯-২০ মৌসুমে সবচেয়ে বেশি আয় করেছে লিওনেল মেসি, গ্রিজম্যানদের বার্সেলোনা। এ নিয়ে পরপর দুই বছর ইউরোপিয়ান ক্লাবগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ আয় করল স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাবটি। ২০১৮-১৯ মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদকে টপকেছিল তারা।

২০১৯-২০ মৌসুমে বার্সেলোনা ক্লাবের মোট আয় ৭১৫ দশমিক ১ মিলিয়ন ইউরো। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৭ হাজার ৩শ ৬১কোটি টাকার বেশি। তাদের ঘাড়েই নিঃশ্বাস ফেলেছে ৭১৪ দশমিক ১ মিলিয়ন বা ৭ হাজার ৩শ ৫৮ কোটি টাকার বেশি আয় করা স্পেনের আরেক ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ।

ইউরোপিয়ান ক্লাবগুলোর মধ্যে ২০১৯-২০ মৌসুমে সর্বোচ্চ আয় করলেও, এর আগের মৌসুম অর্থাৎ ২০১৮-১৯’র চেয়ে ১২৫ মিলিয়ন ইউরো কম আয় হয়েছে বার্সেলোনার। সে মৌসুমে তাদের মোট আয় ছিল ৮৪০ দশমিক ৮ মিলিয়ন ইউরো।

ডেলোয়েট মোতাবেক সর্বোচ্চ আয় করা ক্লাবের তালিকা

১/ বার্সেলোনা – ৭১৫ দশমিক ১ মিলিয়ন ইউরো
২/ রিয়াল মাদ্রিদ – ৭১৪ দশমিক ১ মিলিয়ন ইউরো
৩/ বায়ার্ন মিউনিখ – ৬৩৪ দশমিক ১ মিলিয়ন ইউরো
৪/ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড – ৫৮০ দশমিক ৪ মিলিয়ন ইউরো
৫/ লিভারপুল – ৫৫৮ দশমিক ৬ মিলিয়ন ইউরো
৬/ ম্যানচেস্টার সিটি – ৫৪৯ দশমিক ২ মিলিয়ন ইউরো
৭/ প্যারিস সেইন্ট জার্মেই – ৫৪০ দশমিক মিলিয়ন ৬ মিলিয়ন ইউরো
৮/ চেলসি – ৪৬৯ দশমিক ৭ মিলিয়ন ইউরো
৯/ টটেনহ্যাম হটস্পার – ৪৪৫ দশমিক ৭ মিলিয়ন ইউরো
১০/ জুভেন্টাস – ৩৯৭ দশমিক ৯ মিলিয়ন ইউরো

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button