সোনারগাঁ

মেঘনা নদীর শাখা তিনটি নদ শুকিয়ে গেছে, ৪০ বছর ধরে হয় না খনন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁ টাইমস ২৪ ডটকম : সােনারগাঁ উপজেলার মেঘনা নদীর শাখা মেনিখালী নদ, আষাঢ়িয়ারচর নদ ও ঝাউচর নদসহ তিনটি নদ চরম নাব্যতাসংকটে। এ তিনটি নদ ৪০ বছর ধরে খনন না করায় স্থানীয় গ্রামবাসীর জীবন জীবিকায় ব্যাপক নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। বেড়েছে মানুষের জীবনযাত্রার ব্যায়। এ ছাড়া নদগুলাে শুকিয়ে যাওয়ায় ১০ বছর ধরে নৌ চলাচল বন্ধ রয়েছে ।

দীর্ঘদিন নৌ চলাচল বন্ধ থাকার ফলে বেদখল হয়ে যাচ্ছে নদীর দুই তীর। স্থানীয়রা বলছেন খনন না করায়, বিভিন্ন বাজারের ব্যবসায়ীরা নৌপথে কোনাে মালামাল নারায়ণগঞ্জের সােনারগাঁ উপজেলার মেঘনা ও ব্রহ্মপুত্র পরিবহন করতে পারছেন না। স্থানীয় কৃষকরা সেচকাজে ব্যবহারের জন্য পানি পাচ্ছেন না। কৃষক পড়েছেন বিপাকে। কৃষিজমি হারিয়ে যাচ্ছে। শুষ্ক মৌসুম শুরু হলে তাদের বােরাে ধানের জমিতে সেচ দিতে পারছেন না।

নয়াগাঁও গ্রামের কৃষক সোলায়মান জানান , আমি নয় বছর ধরে বােরাে ধানের আবাদ করতে পারছিনা। সোনারগাঁ উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম বলেন, উপজেলার সােনারগাঁ পৌরসভা, পিরােজপুর ও মােগরাপাড়া, কৃষিনির্ভর এ এলাকার মানুষের জীবন – জীবিকার কথা বিবেচনা করে সরকারের উচিত অতি দ্রুত এ তিনটি নদের খননকাজ শুরু করা।

পিরোজপুর ইউনিয়নের দুধঘাটা থেকে নয়াগাঁও ও আষাঢ়িয়ারচর হয়ে ছয়হিস্যা পর্যন্ত খনন করা অতন্ত্য জরুরী হয়ে পরেছে। এই আষাঢ়িয়ারচর নদীটি একেবারেই শুকিয়ে গেছে। স্থানীয় সাংসদ লিয়াকত হােসেন খোকা বলেন, তিনটি নদ দ্রুত খনন করা হবে। ইতিমধ্যে মন্ত্রণালয়ে ডিও লেটার দিয়েছি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button