সোনারগাঁসোনারগাঁয়ের খবর

সােনারগাঁ পৌরসভা নির্বাচন জটিলতার রহস্য

শাহ জালাল, সোনারগাঁ(নারায়ণগঞ্জ) : নারায়ণগঞ্জের সােনারগাঁ পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও কাউন্সিলরদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২৪ ফেব্রুয়ারি। আইন অনুযায়ী , মেয়াদ শেষের পূর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যেই পৌরসভার ভােট করার বাধ্যবাধকতা থাকলেও এখন পর্যন্ত এই পৌরসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ ঠিক হয়নি।

স্থানীয় প্রশাসন ও পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে , পৌরসভার সীমানা নিয়ে জটিলতা দেখা দেওয়ায় নির্বাচন আয়ােজন করা যাচ্ছে না। সেই জটিলতা মিটলেও এখন সীমানা নির্ধারণ না করায় আটকে আছে নির্বাচন। পৌর এলাকার ছােট শিলমান্দি ও মল্লিকের পাড়া মৌজার কিছু সম্পত্তি স্থানীয় মােগরাপাড়া ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত করায় একটি আইনি জটিলতার সৃষ্টি হয় । এ কারণে এ পৌরসভার নির্বাচন প্রক্রিয়া যথাসময়ে হচ্ছে না । তবে যে দুটি মৌজা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছিল, ওই দুটি মৌজা নিয়ে ইতিমধ্যে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। গত বছরের ২২ ডিসেম্বর প্রকাশিত পৌর -২ শাখার ওই প্রজ্ঞাপনে পৌরসভার সীমানা সংকোচনের কথা বলা হয়।

গত ৫ জানুয়ারি স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের পৌর শাখা -২ এর উপসচিব ফারজানা মান্নান স্বাক্ষরিত একটি চিঠিতে সীমানা নির্ধারণের প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসক ও সােনারগাঁ পৌরসভার মেয়রকে বলা হয় । সােনারগাঁ পৌরসভার সচিব শামসুল আলম বলেন, ‘আমাদের কাছে এখনাে মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত কোনাে চিঠি এসে পৌঁছেনি।

সােনারগাঁ পৌরসভা সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীদের অভিযােগ, একটি পক্ষ ক্ষমতা আঁকড়ে থাকার জন্য নির্বাচন পেছানাের ষড়যন্ত্র করছে।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ইউসুফ উর রহমান বলেন, জেলা প্রশাসক সীমানা পুনর্বিন্যাস করে মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিলে নির্বাচনের প্রক্রিয়া কাজ হবে। এ ছাড়া আর কোন জটিলতা নেই।

পৌরসভার বর্তমান মেয়র সাদেকুর রহমান নির্বাচন পেছানাের জন্য নানা ধরনের তৎপরতা শুরু করেছেন বলে অভিযােগ করেছেন আগামী নির্বাচনের সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীরা।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনােনয়ন প্রত্যাশী গাজী মজিবুর রহমান বলেন, একটি পক্ষ দীর্ঘদিন ক্ষমতা আঁকড়ে থাকার জন্য বিভিন্ন কৌশলে নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছে। এ ক্ষেত্রে ওই পক্ষটি মন্ত্রণালয়ের অসাধু কর্মকর্তা ও স্থানীয় প্রশাসনকে ব্যবহার করছে । একই ধরনের মন্তব্য করেছেন আরেক মনােনয়ন প্রত্যাশী ছগীর আহাম্মেদ। মনােনয়ন প্রত্যাশী মোহাম্মদ হুসাইন বলেন, কোন ষড়যন্ত্রই নির্বাচন স্থগিত করতে পারবে না। জনগণ ভোটের পক্ষে।

নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মােস্তাইন বিল্লাহ বলেন, মন্ত্রণালয়ের কোনাে চিঠি তিনি পাননি। সংশ্লিষ্ট শাখায় খোঁজ নিয়ে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button