সোনারগাঁয়ের খবর

সোনারগাঁয়ে জমি দখলের পাঁয়তারার অভিযোগ, ব্যবসায়ীর উপর হামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা, সোনারগাঁ টাইমস ২৪ ডটকম :

 

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের জামপুর ইউনিয়নের মুন্দিরপুর এলাকায় জমি দখলের পাঁয়তারার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার সকালে জমি দখলের বাঁধা দেওয়ায় ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভূক্তভোগী আহত ইসমাঈল ভূইয়া বাদি হয়ে সোনারগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ভূক্তভোগী ইসমাঈল ভূইয়া জানান, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের মুন্দিরপুর গ্রামে মৃত মোতালেব মিয়ার ছেলে ভূমিদস্যু আব্দুল বাছেত মিয়া ওই এলাকার নীরিহ মানুষের জমি দখল করে প্রভাবশালী এক ব্যক্তির কাছে পাওয়ার মূলে বিক্রি করে দেয়। ওই ব্যক্তি পাওয়ার নেওয়ার পর ভূক্তভোগীরা অসহায় হওয়ায় কিছু বলতে সাহস পায় না। সম্প্রতি আব্দুল বাছেত মিয়া ইসমাঈল ভূইয়ার ৯ শতাংশ জমির উপর নজর দেয়। শনিবার সকালে ওই জমি থেকে বাছেত মিয়া ওই প্রভাবশালীর ইন্ধনে মাটি কেটে দখলের চেষ্টা চালায়।

এসময় বাঁধা দেওয়ার বাছেতের ছেলে দিপুর নেতৃত্বে ২-৪জনের একটি দল ভূক্তভোগী আহত ইসমাঈল ভূইয়ার উপর হামলা চালায়। এসময় ইসমাঈল ভূইয়াকে পিটিয়ে আহত করে। এছাড়াও তাকে অস্ত্র দিয়ে গ্রেফতার করে পুলিশী হয়রানীর করবে বলে হুমকি দেওয়া হয়।

তিনি আরো জানান, ১৯৭২ সালে ৩১৩ দাগে ভূমিদস্যু আব্দুল বাছেতের বাবা মৃত মোতালেব ভূইয়া লাল মিয়া ও চাঁন মিয়ার কাছে ১৬ শতাংশ জমি বিক্রি করেন। ওই জমি পুনরায় মোহাম্মদ আলীর কাছে বিক্রি করেন। মোহাম্মদ আলীর ওয়ারিশ সূত্রে এ জমির মালিকানা পান ছেলে ওমর আলী। পরবর্তীতে ওমর আলী এ জমি স্থানীয় ব্যবসায়ী জাকির হোসেন বাবুর কাছে বিক্রি করে দেন। জাকির হোসেন বাবুর কাছ থেকে ৯ শতাংশ জমি ক্রয় করে নেন ইসমাঈল ভূইয়া।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, জামপুর ইউনিয়নে মুন্দিরপুর এলাকায় আব্দুল বাছেতকে সকলেই ভূমিদুস্য নামেই চেনে। একজন প্রভাবশালী পুলিশ কর্মকর্তার প্রভাবে এ এলাকার মঞ্জু মিয়া, মুনসর আলী জামাল, খলিল মিয়া, আনোয়ার হাজী ও মিজানের জমি দখল করে অন্যের কাছে পাওয়ার মূলে বিক্রি করে দেন।

অভিযুক্ত আব্দুল বাছেত মিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ জমি আমাদের। আমাদের জমি অন্যায়ভাবে ইসমাঈল দখলে নিয়ে ভোগ দখলে আছে।

তালতলা ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ আহসান উল্লাহ বলেন, এ বিষয়টি আমি অবগত রয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button