সোনারগাঁ

জার্মান বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসলাম শিক্ষা চালু

মো. নূর এ আলম, ফ্রান্স প্রতিনিধি, সোনারগাঁ টাইমস ২৪ ডটকম :

জার্মানের পাহাড় আর সবুজের মাঝে ট্যুবিঙ্গেন বিশ্ববিদ্যালয়। ট্যুবিঙ্গেন বিশ্ববিদ্যালয়ে জার্মানির প্রথম ইসলাম ধর্মতত্ত্ব শিক্ষা কেন্দ্রটি কাজ শুরু করেছে গতবছরের অক্টোবর মাসের ১০ তারিখ থেকে৷ এ হলো এধরনের মোট চারটি কেন্দ্রের একটি যেখানে জার্মান ভাষায় ইসলাম শিক্ষা দেয়া হবে৷

এছাড়া আরো তিনটি ইসলাম ধর্মতত্ত্ব শিক্ষা কেন্দ্র চালু হতে যাচ্ছে ৷ তবে এ বছরের অক্টোবর মাসেই ইসলাম ধর্মতত্ত্ব শিক্ষা কেন্দ্র শুরু হয়েছে বাডেন-ভুর্টেমব্যার্গ রাজ্যের ট্যুবিঙ্গেন বিশ্ববিদ্যালয়ে৷

ট্যুবিঙ্গেন বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৪৭৭ সালে৷ ভুর্টেমব্যার্গ অঞ্চলের শাসক কাউন্ট অফ ভুর্টেমব্যার্গকে পোপ অনুমতি দেন একটি বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলার জন্য৷

বর্তমানে ট্যুবিঙ্গেন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছে প্রায় ২৪ হাজার ছাত্র-ছাত্রী৷ গোটা ট্যুবিঙ্গেন শহরে বাস করছে ৮৫ হাজার মানুষ৷ তার মধ্যে এক চতুর্থাংশই হল ছাত্র-ছাত্রী৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে ১৫টি অনুষদ এবং অধ্যাপনার সঙ্গে জড়িত রয়েছেন প্রায় সাড়ে চারশো অধ্যাপক৷ ২০১০ সালে ট্যুবিঙ্গেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাৎসরিক বাজেট হল ২১০ মিলিয়ন ইউরো৷

জার্মানির দক্ষিণে বাডেন-ভুর্টেমব্যার্গ রাজ্যে অবস্থিত ট্যুবিঙ্গেন ইউনিভার্সিটি৷ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মত ট্যুবিঙ্গেনে পড়তে আসে দক্ষিণ এশিয়ার শিক্ষার্থীরাও৷ কীভাবে প্রস্তুত হবে তারা?

বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনা, জার্মানিতে থাকা, বৃত্তি নিয়ে পড়াশোনা করা, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির বিষয়টি দেখাশোনা করছেন ড. রাইনহার্ডট ব্রুনার৷

এশিয়ার কোন ছাত্র বা ছাত্রী যখন জার্মানিতে পড়াশোনার জন্য আসতে চায় তখন কোন্ ধরণের প্রস্তুতি তাদের থাকা প্রয়োজন ?

বিশ্ববিদ্যালয় তাদের কাছ থেকে কী কী আশা করতে পারে ?

সে বিষয়ে ড. ব্রুনারের মতে, এক্ষেত্রে বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য জার্মানির নিজস্ব একটি তালিকার শর্ত রয়েছে৷

এর এক নম্বরে রয়েছে জার্মান ভাষা শেখা এবং জানা৷ যদি পড়াশোনা জার্মান ভাষায় চালানো হয় তাহলে জার্মান ভাষায় তাকে তুখোড় হতে হবে৷

একই কথা খাটে ইংরেজি ভাষার ক্ষেত্রে৷ মাস্টার্স বা গ্র্যাজুয়েশন প্রোগ্রাম যদি ইংরেজিতে হয় তাহলে স্যাট পরীক্ষা দিতে হবে, নম্বর অত্যন্ত ভাল হতে হবে৷ যেমনটি আশা করে থাকে অ্যামেরিকা বা ইংল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো৷

এর সঙ্গে রয়েছে নিজ দেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় বেশ ভাল ফল করার বিষয়টি৷

অর্থাৎ যে ছাত্র বা ছাত্রী জার্মানিতে পড়াশোনার জন্য আসতে চাইছে তাকে পড়াশোনায় বেশ ভাল হতে হবে৷

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button